অস্ট্রেলিয়ার ১২ জন খেলোয়াড় আইপিএল খেলতে পারছে না!

4097
11999

আস্ট্রেলিয়া স্কোয়াডের ২১ জন খেলোয়াড়ের মধ্যে ১২ জন খেলোয়াড় এবারের আইপিএল এ অংশ নিতে পারছে না। এর মধ্যে অধিনায়ক অ্যারন ফিঞ্চ (রয়েল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরু) এবং সহ-অধিনায়ক প্যাট কামিন্স (কলকাতা নাইট রাইডার্স)অন্যতম এরা অস্ট্রেলিয়া ও ইংল্যান্ডের মধ্যে তিনটি টি-টোয়েন্টি ও তিনটি ওয়ানডে সিরিজের জন্য অস্ট্রেলিয়ার দলে জায়গা পেয়েছেন। আইপিএল এর ২০২০ কোভিড -১৯ টেস্টিং প্রোটোকলের কারনে এদের অংশ নেওয়া হবে না।

অস্ট্রেলিয়ার সিনিয়র সহকারী কোচ অ্যান্ড্রু ম্যাকডোনাল্ড ইংল্যান্ড সফরকারী দলে যোগ দেবেন না, কারণ ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া তাকে সংযুক্ত আরব আমিরাতে যাওয়ার অনুমতি দিয়েছে তিনি রাজস্থান রয়্যালসের সাথে যোগ দিবেন যার প্রধান কোচ তিনি।

ফিঞ্চ এবং কামিন্স ছাড়াও ডেভিড ওয়ার্নার (সানরাইজার্স হায়দরাবাদ), স্টিভেন স্মিথ (রয়্যালস), গ্লেন ম্যাক্সওয়েল (কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব), মিচেল মার্শ (সানরাইজার্স), জশ ফিলিপ এবং কেন রিচার্ডসন (রয়েল চ্যালেঞ্জারস), অ্যালেক্স কেরি এবং মার্কাস স্টোনিস (দুজনই দিল্লি ক্যাপিটালস), জশ হ্যাজলউড (চেন্নাই সুপার কিংস) এবং অ্যান্ড্রু টাই (রয়্যালস), ইংলিশ ট্যুর গ্রুপে আইপিএল চুক্তিবদ্ধ খেলোয়াড়দের মধ্যে রয়েছেন।

অস্ট্রেলিয়ার সীমিত ওভারের ইংল্যান্ড সফর ৪ সেপ্টেম্বর থেকে শুরু হবে এবং সংযুক্ত আরব আমিরাতে আইপিএল শুরুর তিন দিন আগে ১৬ সেপ্টেম্বর শেষ হবে।

আইপিএলের এসওপি অনুসারে, স্কোয়াডগুলি সংযুক্ত আরব আমিরাতে নামার পর সমস্ত সদস্যরা টিম হোটেলগুলিতে যাওয়ার আগে বিমানবন্দরে একটি পরীক্ষা নেওয়া হব। এই জায়গা থেকে, আইপিএল টেস্টিং প্রোটোকল শুরু: প্রতিটি স্কোয়াড তাদের হোটেলে সাত দিনের একটি পৃথক কোয়ারানটিন এ থাকা বাধ্যতামূলক এবং প্রথম, তৃতীয় এবং ষষ্ঠ দিনে প্রতিটি স্কোয়াডের সদস্যকে তিনবার পরীক্ষা করা হবে। তিনটি ফলাফল যদি নেগেটিভ আসে, স্কোয়াড প্রশিক্ষণ শুরু করতে পারে। এর পরে, সমস্ত খেলোয়াড়কে টুর্নামেন্ট জুড়ে প্রতি সপ্তাহের পঞ্চম দিনে আবার পরীক্ষা করা হবে।

অস্ট্রেলিয়ার খেলোয়াড়েরা এই সব স্বাস্থ্য বিধি মেনে সংযুক্ত আরব আমিরাতে যেতে পারছে না সুতরাং আমরা এদের আসরের শুরু থেকে দেখতে পাচ্ছি না এবারের আইপিএল এ।

4097 COMMENTS