অস্ট্রেলিয়ান খেলোয়াড়দের বিরুদ্ধে হোটেলের বিছানা নষ্টের অভিযোগ

3
82

সাফল্য কিংবা ব্যর্থতা ক্রীড়াঙ্গনের খুবই স্বাভাবিক প্রক্রিয়া। তবে স্বাভাবিক এই প্রক্রিয়াটা অনেকেই মেনে নিতে পারেন না। এবারের টোকিও অলিম্পিকে অংশ নেওয়া অস্ট্রেলিয়ান খেলোয়াড়দের বিরুদ্ধে হোটেলের বিছানা নষ্ট, রুমের দেওয়াল ছিদ্রের অভিযোগ এনেছে অলিম্পিক কমিটি।

এবারের টোকিও অলিম্পিকে অংশ নেওয়া অস্ট্রেলিয়ান অ্যাথলেটরা গতকাল দেশে ফিরেছেন। তবে তারা দেশে ফেরার আগে হোটেল রুমের বিছানা নষ্ট করে ফেলা, বিছানা ভেঙে ফেলা ও দেওয়াল ছিদ্র করেছে বলে জানিয়েছে টোকিও অলিম্পিকের আয়োজক কমিটি।

টোকিও অলিম্পিক কমিটির এমন অভিযোগ গুলোর প্রেক্ষিতে তা তদন্তেরও ঘোষণা দিয়েছে অস্ট্রেলিয়ার ফুটবল ফেডারেশন ও রাগবি ইউনিয়ন। অস্ট্রেলিয়া রাগবির খেলোয়াড়দের উগ্র আচরণের ভিত্তিতে আলাদা ভাবে তদন্ত করছে রাগবি ইউনিয়ন, ঘটনা সত্য হলে সেগুলোকে অগ্রহণযোগ্য বলেছে তারা।

তবে অস্ট্রেলিয়ার অলিম্পিক কমিটির প্রধান নির্বাহী ম্যাট ক্যারল জানিয়েছেন, “ওই ফ্লাইটের দায়িত্বে থাকা ক্রুদের থেকে কোনো আনুষ্ঠানিক অভিযোগ পাইনি আমরা। তবে টোকিও থেকে যে অগ্রহণযোগ্য আচরণের অভিযোগের কথা বলা হচ্ছে তা আমরা খতিয়ে দেখবো।”

অভিযোগ অস্বীকার করেননি অলিম্পিকে অস্ট্রেলিয়ার দলনেতা ইয়ান চেস্টারম্যানও। তিনি বলেন, “কিছু তরুণ ভুল করেছে। তারা রুম যেভাবে ছেড়েছে, সেটা ঠিক হয়নি। কিন্তু তাই বলে রুমগুলো কোনোভাবেই পুরোপুরি নষ্ট করেনি তারা, যা ক্ষতি হয়েছে সেটা সামান্যই বটে। কার্ডবোর্ডের তৈরি বিছানা ভেঙে যাওয়া কোন কঠিন বিষয় নয়।”

টোকিও অলিম্পিকে অস্ট্রেলিয়ানদের পারফর্মেন্স মোটেও খারাপ নয়, গতকাল পর্যন্ত দেশটি ১৪টি স্বর্ণসহ ৩৩টি পদক নিয়ে চতুর্থ অবস্থানে আছে। যথারীতি ৩৩টি স্বর্ণসহ ৬৯টি পদক নিয়ে তালিকায় শীর্ষে আছে চীন, দ্বিতীয় অবস্থানে থাকা যুক্তরাষ্ট্রের অর্জন ২৪টি স্বর্ণসহ ৭২টি পদক।

3 COMMENTS

  1. Hello, Neat post. There’s an issue together with your website in internet explorer, might check this?K IE nonetheless is the marketplace leader and a huge component of people will leave out your magnificent writing because of this problem.

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here