অ্যাশেজের জন্য ১৯ বছরের অপেক্ষা

0
7478

অ্যাসেজের গল্পের কথা কেউ কম শুনেনি, কম দেখেনি, কম দেখবেওনা। অ্যাসেজ ক্রিকেটের প্রতিটা কবিতার লাইনের শেষ কথা। কখনো অস্ট্রেলিয়া আবার কখনো ইংল্যান্ডের হাতে উঠেছে শত বছর পুরনো অ্যাসেজের ছোট্ট স্মারক।

অস্ট্রেলিয়ার রাজত্ব ক্রিকেট কম দেখেনি, পাঁচবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন অস্ট্রেলিয়ার রাজা হবার গল্পে অনেক বই লিখা যাবে অনায়াসে। তাই বলে অ্যাসেজে টানা প্রায় ২০ বছরের রাজত্ব! হ্যা তেমনটাই ঘটেছিল ১৯৫৩ সালে।

১৯৩৮ সালের পর প্রথম অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে অ্যাসেজ জিততে পারে ইংল্যান্ড। পাক্কা ১৮ বছর ৩৬২ দিন পর আজকের দিনে ( ১৯ আগস্ট) অ্যাসেজ জয় পেয়েছিল ইংল্যান্ড। বিশ্বাস করা যায়! একটা টেস্ট সিরিজ জন্য ১৯ বছরের অপেক্ষা কম কথা না৷

ইংল্যান্ডের ঐতিহাসিক ওভালে সিরিজের ৫ম অ্যাসেজ টেস্টে শুরুতে ব্যাট করেছিল অস্ট্রেলিয়া। অস্ট্রেলিয়ার ২৭৫ রানের জবাবে ইংল্যান্ড করে ৩০৬ রান। দ্বিতীয় ইনিংসে অস্ট্রেলিয়ার ১৬২ রানের সংগ্রহ ইংলিশদের টার্গেট এনে দেই মাত্র ১৩২ রানের।

যখন ইংল্যান্ড পাঁচ উইকেটে ছিলেন একই ক্লাবের দুইজন ব্যাটসম্যান। মিডলসেক্সের হয়েও একইসাথে ব্যাট করতেন ডেনিস কম্পটোন এবং বিল এডিরক। অস্ট্রেলিয়ার পার্ট টাইম বোলার আর্থার মরিচের বলে বাউন্ডারিতেই ইংল্যান্ডের ১৯ বছরের আক্ষেপ শেষ হয়।

এরপর অবশ্য ইংল্যান্ড অনেক টেস্ট জিতেছে, অনেক অ্যাসেজ জিতেছে। তবে ১৯ বছরের আক্ষেপ ঘোচানো টেস্ট জয়টি ইংল্যান্ডের ইতিহাসে সবথেকে গুরত্বপুর্ন জয়, অন্যতম স্বস্তির জয়।