আইসিসির সিদ্ধান্তে খুশি নয় বিসিবি

0
672

আরব আমিরাতে এ বছরেরই অক্টোবর-নভেম্বরে অনুষ্ঠিত হবে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আসর। সাধারণ নিয়মে ১৫ সদস্যের স্কোয়াড হলেও করোনা পরিস্থিতিতে টুর্নামেন্ট আয়োজন হওয়ায় অংশগ্রহণকারী দেশগুলোকে অতিরিক্ত ক্রিকেটার নেওয়ার সুযোগ দিচ্ছে আইসিসি।

অতিরিক্ত ক্রিকেটার নেওয়ার সুযোগ থাকলেও তাদের সব খরচ বহন করতে হবে সংশ্লিষ্ট বোর্ড গুলোকে। ১০ সেপ্টেম্বরের মধ্যে বিশ্বকাপের জন্য চূড়ান্ত স্কোয়াড ঘোষণা করতে হবে অংশ নেওয়া দেশগুলোকে বাড়তি খরচ করতে হলেও ঝুঁকি নিতে রাজি নয় বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের। তবে আইসিসির এই সিদ্ধান্তে মোটেও খুশি নয় বিসিবি।

জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে মিরপুরে দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠানে গরিব দুস্থদের মাঝে খাবার বিতরণ অনুষ্ঠান শেষে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের স্কোয়াড নিয়ে আইসিসির সিদ্ধান্তের বিষয়ে বিসিবির মিডিয়া কমিটির চেয়ারম্যান জালাল ইউনুস সংবাদমাধ্যমের সাথে কথা বলেছেন।

সাধারণ নিয়মে ১৫ সদস্যের স্কোয়াডকে পরিস্থিতি বিবেচনায় কম উল্লেখ করে জালাল ইউনুস বলেন, “অবশ্যই কম, আমার মনে হয়। মহামারীর কারণে তাদের অন্য নিয়ম থাকা উচিৎ ছিল, ব্যাকআপ খেলোয়াড় নেওয়ার নিয়ম রাখা উচিৎ ছিল।”

বাড়তি স্কোয়াড মানেই বাড়তি খরচ তবে বাড়তি খরচ হলেও ঝুঁকি নিতে চায় না বিসিবি। জালাল ইউনুস আরও বলেন, “বাড়তি খেলোয়াড় নিলে নিজ নিজ খরচে নিতে হবে। সেটা করতে হচ্ছে। মহামারীর জন্য আরও ১-২ বছর দেখা উচিৎ এবং স্কোয়াড আরও বড় রাখা হলে ভালো হতো। তবে সুযোগ আছে, আপনি নিজের খরচে নিয়ে যেতে পারবেন।”

র‍্যাংকিংয়ে পিছিয়ে থাকায় সরাসরি বিশ্বকাপে খেলা হবে না বাংলাদেশের, গ্রুপ ‘বি’ তে স্কটল্যান্ড, পাপুয়া নিউগিনি ও ওমানের সাথে বাছাইপর্ব খেলে মূল পর্বে জায়গা করে নিতে হবে।