রিচার্ড কেটলবরো মাঠে স্মার্টওয়াচের পরিধানের করায় আকসু কর্মকর্তাদের সাথে কথা বলেছেন

0
1975

ইংল্যান্ড ও পাকিস্তানের মধ্যে চলমান দ্বিতীয় টেস্টের মাঠের আম্পায়ার রিচার্ড কেটলবরো স্মার্টওয়াচ পরে মাঠে নামার জন্য আইসিসির দুর্নীতি দমন ইউনিট (এসিইউ) তার সাথে কথা বলেছেন।

ম্যাচের প্রথম সেশনের সময় কেটলবরোকে ঘড়ি পরে থাকতে দেখা গেছে। তিনি দ্রুত তার ভুল বুঝতে পারে, এবং ঘড়িটি খুলে ফেলেন এবং এই বিষয়টি এসিইউকে জানায়। প্রথম দিন লাঞ্চের পরে তাকে আর এটি পরে থাকতে দেখা যায়নি।

এসিইউ্ সম্ভবত ঘটনাটিকে নিয়মকানুনের একটি সামান্য লঙ্ঘন বলে মনে করে। তারা কেটলবোরোর সাথে কথা বলেছে এবং তাকে প্লেয়ার এবং ম্যাচ অফিসিয়াল দের জন্য নির্ধারিত এরিয়ায় প্লেয়ার ও ম্যাচ অফিসিয়ালদের আচরণ ও দায়বদ্ধতার কথা মনে করিয়ে দিয়েছে। তারা এবিষয়ে পরবর্তী পদক্ষেপ নেওয়ার সম্ভাবনা কম।

গত কয়েক বছর ধরে ক্রিকেটে দুর্নীতির বিরুদ্ধে লড়াইয়ের কার্যক্রমের অংশ হিসেবে খেলোয়াড় এবং কর্মকর্তারা তাদের ফোন (এবং অন্য কোনও যোগাযোগের উপযুক্ত ডিভাইস) খেলা শুরুর আগে দুর্নীতি দমন কর্মকর্তাদের হাতে তুলে দিতে বাধ্য থাকেন। তারপরে তারা এগুলি লক করে রাখে এবং খেলা শেষে তাদের কাছে ফিরিয়ে দেওয়া হয়। আইসিসি যে কারো সাম্প্রতিক ক্রিয়াকলাপ পর্যবেক্ষণ করার জন্য ডিভাইসগুলি বাজেয়াপ্ত করতে এবং সেগুলো থেকে সমস্ত ডাটা ডাউনলোড করার ক্ষমতাও রাখে, তবে তারা এই পরিস্থিতিতে এমন কিছু না করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

কেটলবরো প্রথম এমন ভুল করেছেন এমনটা না। ২০১৮ সালের লর্ডস টেস্টের সময় পাকিস্তানের খেলোয়াড়দের স্মার্টওয়াচ পরিহিত অবস্থায় মাঠ নামার পরে কর্মকর্তাদের সাথে কথা বলতে হয়েছিল। এবং ঐ ডিভাইস পরবর্তীতে নষ্ট করে দেয়া হয়েছিল কেননা ডিভাইসগুলি বাইরের যে কোন যোগাযোগ রক্ষাকারী ডিভাইসের সাথে সংযোগ স্থাপন করার জন্য এগুলি ব্যবহার করা যেতে পারে। ঐ ঘটনার পর খেলোয়াড়দের বিধিবিধানগুলি মকনে করিয়ে দেওয়া হয়েছিল যে এগুলি একেবারে পরিধান করা নিষিদ্ধ। আবার এই ঘটনাকে সামান্য লঙ্ঘন ছাড়া আর কিছু মনে করা হয়নি।

এই বছরের শুরুতে, কাউন্টি ক্রিকেটে লাইভ স্ট্রিমিং পরিষেবাদির বৃদ্ধি পাওয়ার কারণে ইসিবি সবক্ষেত্রে খেলোয়াড়দের খেলার মাঠে স্মার্টওয়াট পরা নিষিদ্ধ করে দুর্নীতি দমন নির্দেশিকা আরো জোরদার করেছে।

ঘটনাটি কেটলবরো এবং এসিইউর জন্য কিছুটা বিব্রতকর কারণ ঘটাবে। সাধারণত ম্যাচের দিন মাঠে আসার পরে এ জাতীয় ডিভাইসগুলি দুর্নীতি দমন ব্যবস্থাপকের কাছে জমা দিয়ে দিতে হয় এবং এক্ষেত্রে কেন এমনটা হয়নি তা আসলে বোঝা যায়নি।