আসন্ন বিশ্বকাপে নতুন ইতিহাস সৃষ্টি হতে যাচ্ছে!

0
421

যেকোন ইতিহাস তৈরি হয় পূর্বের যে কোন ইতিহাসকে বদলে দিতে। ওয়ানডে বিশ্বকাপের ইতিহাসে এটিই প্রথম যেখানে পূর্বের আসরের কোন দলের অধিনায়ক বর্তমানে দলের নেতৃত্বে থাকছে না।

আগামী অক্টোবরে ভারতে শুরু হতে যাওয়া ক্রিকেট বিশ্বকাপে আগামী কয়েক মাসে দল গুলিতে যদি তেমন কোন পরিবর্তন না হয় তবে আগের বিশ্বকাপের কোন দলপতির একজনও এই বছরের ওয়ানডে বিশ্বকাপে কোন দলকে নেতৃত্ব দেবেন না।

আগের বিশ্বকাপের পরে সব দলগুলোতে পরিবর্তন এসেছে। কেন উইলিয়ামসন আইপিএল খেলতে গিয়ে হাঁটুর আঘাতের পান যার কারনে ২০২৩ সালের এই আসর নাও খেলতে পারেন। নিউজিল্যান্ডই একমাত্র দল যাদের আগের সংস্করণের অধিনায়ক ছিল – উইলিয়ামসন। উইলিয়ামসন নিউজিল্যান্ডকে ফাইনালে নিয়ে যাওয়ার পাশাপাশি নয় ইনিংসে ৫৭৮ রান করে ২০১৯ সালে টুর্নামেন্টের সেরা খেলোয়াড় নির্বাচিত হয়েছিলেন।

যদিও নিউজিল্যান্ড এখনও পরিবর্তিত অধিনায়ক হিসেবে কোন নাম ঘোষণা করেনি‌। টম ল্যাথাম অনেকবার উইলিয়ামসনের অনুপস্থিতিতে দলকে নেতৃত্ব দিয়েছেন, তার নেতৃত্ব দেওয়ার সম্ভাবনা সবচেয়ে বেশি। বর্তমানে যে সব খেলোয়াড এই মুহূর্তে তাদের দলের নেতৃত্ব দিচ্ছেন বিশ্বকাপের কাছাকাছি আসার পর হয়ত তারা তাদের বর্তমান দায়িত্বে না ও থাকতে পারেন।

­

অন্যান্য দলের মধ্যে যারা সরাসরি বিশ্বকাপ খেলার যোগ্যতা অর্জন করেছে: গুলবাদিন নাইব এখনও দলে আছে, তবে আফগানিস্তান দলকে বেশ কিছু সময় ধরে হাশমতুল্লাহ শাহিদির নেতৃত্বে দিচ্ছেন।

অস্ট্রেলিয়া দলের নেতৃত্বে এখন প্যাট কামিন্স রয়েছেন , অ্যারন ফিঞ্চ আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে আগেই অবসর নিয়ে নিয়েছেন।

বাংলাদেশ দলে মাশরাফি মুর্তজার স্থলে তামিম ইকবাল এখন নেতৃত্ব দিচ্ছেন। মাশরাফি ২০২০ সালের মার্চ থেকে আন্তর্জাতিক কোন ক্রিকেট খেলেননি।

ইয়ন মরগান ৭ বছরের বেশি সময় ধরে নেতৃত্ব দেবার পর সাদা বলের অধিনায়ক হিসেবে গত বছর আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসর নিয়েছিলেন, যার মধ্যে ২০১৯ বিশ্বকাপের ট্রফি তার দখলে – জস বাটলার এখন ইংলিশদের দায়িত্বে আছেন।

রোহিত শর্মা ভারতের সর্ব-ফর্ম্যাটের অধিনায়কত্ব করছেন, ২০২১ সালের শেষের দিকে বিরাট কোহলিকে পদ থেকে সরিয়ে রোহিতকে ভারতের ওডিআইতে দায়িত্ব দেওয়া হয়।

সরফরাজ আহমেদের স্থলাভিষিক্ত হয়ে বাবর আজম ২০২০ এর মে মাস থেকে ওয়ানডেতে পাকিস্তানের অধিনায়ক হিসেবে আছেন।

গতবার দশ দলের মূল আসরে থাকা শ্রীলঙ্কা ও ওয়েস্ট ইন্ডিজকে এবার খেলতে হবে বাছাইপর্ব। কিন্তু সেখানেও পরিবর্তন আছে, দিমুথ করুনারত্নের পরিবর্তে শ্রীলঙ্কার দায়িত্বে দাসুন শানাকা রয়েছেন।

 

ওয়েস্ট ইন্ডিজ এখন শাই হোপের নেতৃত্বে রয়েছে – ২০১৯ বিশ্বকাপে জেসন হোল্ডারের অধীনে দলের খারাপ পারফরম্যান্সেরের পর পদ হারানো হোল্ডারের স্থলে নেতৃত্ব দিয়েছিলেন কাইরন পোলার্ড এবং নিকোলাস পুরান।

দক্ষিণ আফ্রিকাও এখনও মূল পর্বে যাবার যোগ্যতা অর্জন করতে পারেনি – আয়ারল্যান্ড এখনও তাদের টপকে যেতে পারে যদি তারা আসন্ন সিরিজে বাংলাদেশের বিরুদ্ধে তিনটি ম্যাচ জিততে পারে এবং তাদের নেট রান রেট -০.৩৮২ থেকে ০.০৭৬ বা তার চেয়ে বেশি থাকে। দক্ষিণ আফ্রিকা এখন টেম্বা বাভুমার নেতৃত্বে, ফাফ ডু প্লেসিস এখন আর দলে জায়গা পাচ্ছেন না।

ওয়ানডে বিশ্বকাপ আগামী ৫ অক্টোবর থেকে শুরু হয়ে ১৯ নভেম্বর পর্যন্ত চলবে।

এদিকে, কোয়ালিফাইং ইভেন্টটি জিম্বাবুয়েতে ১৮ জুন থেকে ৯ জুলাইয়ের মধ্যে অনুষ্ঠিত হবে। শ্রীলঙ্কা ও ওয়েস্ট ইন্ডিজের পাশাপাশি নেদারল্যান্ডস, জিম্বাবুয়ে, নেপাল, ওমান, স্কটল্যান্ড, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, সংযুক্ত আরব আমিরাত এবং আয়ারল্যান্ড ও দক্ষিণ আফ্রিকার মধ্যে যে কোন এক দল অংশ নিতে পারবে। এই কোয়ালিফায়ার ইভেন্ট থেকে শীর্ষ দুই দল বিশ্বকাপের মূল পর্বে যোগ দিবে।