ইংল্যান্ডের শার্টে ব্লাক লাইভ ম্যাটার লোগো

0
3066

ইংল্যান্ড ও ওয়েলস ক্রিকেট বোর্ড বৃহস্পতিবার (২ জুলাই) ইংল্যান্ডের খেলোয়াড়রা ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে তিন ম্যাচের টেস্ট সিরিজে তাদের শার্টে ‘ব্ল্যাক লাইভস ম্যাটার’ প্রতীক পরবে বলে ঘোষণা করেছে।

ইসিবি তাদের এই সিদ্ধান্তের ব্যাখ্যা দিয়ে এই আন্দোলনের কোনও রাজনৈতিককরণ না বের করার কথা বলেছেন। ইসিবির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা টম হ্যারিসন বলেছেন, “ব্ল্যাক লাইভস ম্যাটার” এর এই যে বার্তা ইংল্যান্ড এবং ওয়েলস ক্রিকেট বোর্ড পুরোপুরি সমর্থন করে। এটি সংহতির, অগ্রগতি এবং সামাজিক পরিবর্তনের বার্তা বহন করে। সমাজে বর্ণবাদের কোনও স্থান থাকতে পারে না। বা আমাদের খেলাধুলার ক্ষেত্রে এটি মোকাবেলায় আমাদের আরও বেশি নজর দিতে হবে।”

“এই মুহূর্তে আমাদের সবাইকে ঐক্য গড়ে তুলতে হবে। আমরা গর্বিত যে আমাদের খেলোয়াড়রা ওয়েস্ট ইন্ডিজের দলের পাশে দাঁড়িয়েছে এবং এটি এমন একটি লোগো যা মানুষের দর্শনকে পরিবর্তন করবে। প্রথম ফুটবলেরা এই লোগো ব্যবহার করেছে এবং ক্রিকেটাররা তাদের সাথে সংহতি প্রকাশ করেছে।” হ্যারিসন আরো বলেন, “আমারা ধন্যবাদ দিতে চাই ট্রয় ডিনি এবং তার পার্টনার আলিশা হোসানাহকে, যে লোগোটি ডিজাইন করেছেন এবং আমাদের এটি ব্যবহারের জন্য সন্মতি দিয়েছেন।” এটা আমাদের দায়িত্ব যে, ক্রিকেট সবার জন্য উন্মুক্ত খেলা তা নিশ্চিত করা। কিছু সম্প্রদায়ের জন্য ক্রিকেটে এখনো কিছু প্রতিবন্ধকতা রয়েছে আমরা তাদেরকে ক্রিকেটে অন্তর্ভুক্ত করার জন্য যে পদক্ষেপ গ্রহণ করেছি তা ক্রিকেটকে আরো বৈচিত্র্যময় করবে। ইতিমধ্যে যে কাজ করেছি তার উপর ভিত্তি করে আরও কিছু পদক্ষেপ গ্রহন করব যাতে এখনও বিদ্যমান প্রতিবন্ধকতাগুলি মোকাবেলা করতে পারি।

ইসিবি কর্তৃক গৃহীত এই সিদ্ধান্তের প্রতি ক্রিককেটারদের পুরোপুরি সমর্থন আছে তারা বর্তমানে সাউদাম্পটনের দ্য রোজ বাউলে একটি আন্ত-ইংল্যান্ড অনুশীলন ম্যাচ খেলছেন। ইংল্যান্ডের টেস্ট অধিনায়ক জো রুট ওয়েস্ট ইন্ডিজের দলের মত দারুন একটি দলের প্রতি দলের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন এবং জোর দিয়ে বলেছেন যে ক্রিকেটে কোনও ধরণের বৈষম্যের কোনও অবকাশ নেই।

“কৃষ্ণাঙ্গ সম্প্রদায়ের প্রতি সংহতি প্রকাশ করা এবং সাম্যতা ও ন্যায়বিচারের বিষয়গুলিতে প্রয়োজনীয় সচেতনতা বাড়াতে কাজ করা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ,” পরের সপ্তাহে দ্বিতীয় সন্তানের জন্মের কারণে প্রথম টেস্ট মিস করবেন বলেছিলেন। “ইংল্যান্ডের খেলোয়াড় এবং পরিচালনা পর্ষদ এই মতবাদের সাথে একাত্মতা প্রকাশ করছে এবং জাতিগত কুসংস্কার নির্মূলের জন্য আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের প্ল্যাটফর্মটি ব্যবহার করবে।

আমাদের বেশিরভাগ লোকেরা বুঝতে পারে না যে (BAME-BLACK, ASIAN, MINORITY ETHNIC) কৃষ্ণাঙ্গ, এশিয়ান এবং সংখ্যালঘু জাতির মে কেউ যখন তাদের ত্বকের রঙের কারণে তাদের বিচার করা হয় বা কোন মন্তব্য করা হয় তখন তাদের মানসিক অবস্থা কি হয়। গোষ্ঠী হিসাবে আমরা এ অনুভূতি সম্পর্কে শিখছি এবং আমরা আমাদের শিক্ষিত করছি। সবার জন্য সমান সুযোগ এবং সমান অধিকার থাকতে হবে। আমরা আশা করি যে আমরা তাদের পক্ষে এই অবস্থান নিয়ে সচেতনতা বৃদ্ধিতে ভূমিকা রাখতে পারি। এবং আমরা একটি দল হয়ে কাঁধে কাঁধে মিলিয়ে দাঁড়িয়ে আমাদের ভূমিকা রাখতে পারি এবং আমরা আশা করি যে এতে সচেতনতা বৃদ্ধি পাবে এবং আমরা এমন একটি সমাজ তৈরি করতে পারি যেটিতে আপনার ত্বকের রঙ এবং আপনি কোন গোত্র থেকে এসেছেন এর কারনে আপনার যোগ্য সুযোগগুলির উপর কোনও প্রভাব পরবে না।

সর্বশেষে রুট বলেন, “আমরা বিশ্বাস করি যে বর্ণবাদ বা কোনও ধরণের বৈষম্যের কোনও জায়গা কোথাও নেই,”