এইবার শাস্তির মুখে পড়লো সাইলেন্ট কিলার মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ।

0
581

বাজে আম্পায়ারিং নিয়ে বারবার খবরের শিরোনাম হচ্ছে এবারের ঢাকা লিগ। বারবার ই প্রশ্ন উঠছিল ঢাকা লিগের আম্পায়ারিং নিয়ে আবাহনী বাদে যে কোনো দলের ক্যাপ্টেন আপিল করলে সারা দেয় না আম্পায়ার এইবার সেই ভোগান্তি ভুগতে হলো মাহামুদউল্লাহকে ও।

১৬ তম ওভারে প্রাইম ব্যাংকের প্রয়োজন ছিল ২৮ বলে ২৯ রান। স্ট্রাইক প্রান্তে ছিলেন আলোক কাপালি, বোলিং এ ছিলেন স্পিনার নাসুম আহমেদ, ব্যাটের জায়গা থেকে বলটি হালকা টার্ন করে গেলো উইকেটকিপার এর হাতে তারপর যথারিতি আম্পায়ার এর কাছে অনেকক্ষণ যাবত আবেদন করেন স্কিপার মাহামুদউল্লাহ বোলার এবং উইকেট কিপার কিন্তু আম্পায়ার সাড়া দেননি তাই হতাশ মাহমুদউল্লাহ বসে পড়লেন মাঠেই যার কারণে খেলা বন্ধ ছিলো কয়েক মিনিট।

ম্যাচ শেষে ম্যাচে থাকা আম্পায়ারদের রিপোর্ট এর ভিত্তি তে ম্যাচ রেফারি রাকিবুল হাসান জরিমানা করেন রিয়াদ কে। রাকিবুল হাসান জানান আচরণ বিধি ২.৮ ভঙ্গ করেছেন রিয়াদ‌। এর আগের ম্যাচে ও আম্পায়ার এর ওয়াইড বলের সিদ্ধান্তে রেগে গেছিলেন রিয়াদ।

বার বার এমন আবেদন করার পর ও নাকোচ হলে পূর্ণাঙ্গ হতাশা প্রকাশ করেন রিয়াদ‌। আকাশের দিকে দুহাত ছুড়ে হতাশ রিয়াদ মাটিতে ঘুষি মারেন কয়েকবার। আম্পায়ারকে আবেদন করার পর নিজের ফিল্ডিং স্থানে যখন ফিরে আসেন এসে আবার বসে পরেন। হতাশা ভরপুর রিয়াদ এর মলিন মুখ দেখে সতীর্থ ফিল্ডার রা ও তাকিয়ে ছিলেন তার দিকে। এরপর আম্পায়ার রিয়াদকে এবং বোলারকে উঠতে বলেন তবুও রিয়াদ কিছুক্ষণ বসে ছিলো।