কিলিয়ান এমবাপ্পের উপর ভর করে পিএসজির দুর্দান্ত জয়

0
892

লিগ ওয়ানে লিওনেল মেসি ও নেইমারকে ছাড়াই দারুন এক জয় পেয়েছে পিএসজি । মেসি নেইমার বিহীন লিগের দ্বিতীয় ম্যাচেও দাপট দেখিয়েছে মাউরো পচেত্তিনোর শিষ্যরা। স্কোয়াডে না থাকলেও গ্যালারিতে বসেই ম্যাচ উপভোগ করেছেন মেসি, নেইমার, ডি মারিয়ারা।

পিএসজির ঘরের মাঠ পার্ক দ্যা প্রিন্সেসে স্ট্রাসবার্গকে ৪-২ গোলে হারিয়ে টানা দুই ম্যাচেই জয় তুলে নিল পিএসজি। লিগ ওয়ানে স্ট্রাসবার্গের বিপক্ষে শেষ সাত ম্যাচে মাত্র একটিতে হারের মুখ দেখা পিএসজি এ ম্যাচেও ছিল দুর্দান্ত। পিএসজির হয়ে গোল করেছেন মাউরো ইকার্দি, কিলিয়ান এমবাপ্পে, সারাবিয়া ও জুলিয়ান ড্রাক্সলার। ম্যাচের শুরু থেকেই স্ট্রাসবার্গের উপর দাপট দেখাতে থাকে পিএসজি।

যার ফলে তিন মিনিটেই স্বাগতিকদের এগিয়ে নেন মাউরো ইকার্দি। দিয়ালোর উঁচু ক্রস লাফিয়ে উঠে মাথা ছোয়ালে দুরের পোস্টে বল জালে খুজে পায়। নেইমার-মেসিহীন পিএসজির দারুন এক শুরু দেখে স্বাগতিক দর্শকেরা। ২৫ মিনিটে পিএসজিকে গোল উপহার দেয় স্ট্রাসবার্গ, কিলিয়ান এমবাপ্পের নেওয়া শট স্ট্রাসবার্গের এক ডিফেন্ডারের গায়ে লেগে বল জালে জড়ায়।

দুই গোল করেও যেন ক্ষ্যান্ত হচ্ছিল না পিএসজি। ২৭ মিনিটেই তিন গোলের লিড পায় এমবাপ্পেরা। কিলিয়ান এমবাপ্পের ক্রস থেকে দুরের পোস্টে পা বাড়িয়ে বল জালে ঠেলে দেন জুলিয়ান ড্রাক্সলার।

দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেই স্ট্রাসবার্গ গোলকিপারের বীরত্বে গোল পাওয়া হয়নি পিএসজির। বাম দিক থেকে ডি বক্সের মধ্যে ঢূকে পড়ে জোড়াল শট নিলেও তা সামনে এগিয়ে এসে ঠেকিয়ে দেন সেলস।

ম্যাচের ৫৩ মিনিটে গোল করে ম্যাচে ফেরার ইঙ্গিত দেয় স্ট্রাসবার্গ। থমাসনের বাড়নো ক্রস কেহরার ও হাকিমিকে ফাঁকি দিয়ে দারুন ভাবে মাথা ছুইয়ে বল জালে জড়ান গেমেইরো। ৬২ মিনিটে কিলিয়ান এমবাপ্পেকে হতাশায় ভুগান স্ট্রাসবারগের কিপার সেলস। ফ্রেঞ্চ তারকার নেওয়া শট হাতের স্পর্শে বাইরে পাঠিয়ে দেন এই কিপার।

পিএসজিকে খুব একটা স্বস্তিতে রাখেনি স্ট্রাসবার্গ, ৬৪ মিনিটে লুডুভিচ আজোরকির দুর্দান্ত এক হেডে ম্যাচ জমিয়ে তোলে সফরকারীরা। লেইনার্ডের বাকানো ক্রস ডি বক্সের মধ্য খান থেকে মাথা ছুইয়ে ডান পাশের দুরের পোস্টে নাভাসকে পরাস্ত করে বল জালে জড়ান আজোরকি। তবে ৮৫ মিনিটে স্ট্রাসবার্গের জালে বল জড়িয়ে সফরকারীদের ম্যাচ থেকে ছিটকে দেয় পিএসজি। বাম পাশ দিয়ে বল ডি বক্সের মধ্যে ঢুকে পরেন এমবাপ্পে, তার কাট ব্যাক থেকে ফাঁকা জায়গায় দাঁড়ানো পাবলো সারাবিয়া সহজেই বল জালে জড়ান।

গোল হজমের মিনিট খানেক বাদেই গোল শোধ দেয়ার দারুন এক সুযোগ মিস করেন ওয়ারিস। দিয়ালিওর হালকা ব্যাক পাস নাভাস পর্যন্ত না গেলে তা নিয়ন্ত্রণে নেন ওয়ারিস। কিন্তু গোলকিপার নাভাসকে একা পেয়েও লক্ষ্য ভেদ করতে পারেনি। ম্যাচের বাকি সময়ে আর কোন দল গোল করতে না পারলে ৪-২ গোলের জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে পিএসজি। এই হারে পিএসজির ঘরের মাঠে এ নিয়ে শেষ ৩১ ম্যাচের কোনটিতেই হারাতে পারল না স্ট্রাসবার্গ।

এই জয়ে দুই ম্যাচে ৬ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে অবস্থান করছে প্যারিসের ক্লাবটি। অন্যদিকে দুই ম্যাচে দুই হার নিয়ে তালিকার তলানীতেই থাকল স্ট্রাসবার্গ।