জয়ের হ্যাট্রিকের পর বিরতি নিলো বাংলাদেশ

0
467

মাত্র ১০৫ রানের লক্ষ্য যদিও সমস্যা হবার কথা ছিল না অস্ট্রেলিয়ার জন্য তবে গত তিন ম্যাচে অস্ট্রেলিয়ার ব্যাটসম্যানরা যেভাবে ব্যাট করেছে সেখান থেকে আশা জেগেছিল একটু হলেও। শুরুতেই সেই আশার পালে জোর আর একটু বাড়িয়ে দিল শেখ মাহেদী।

১ রান করতেই প্যাভিলিয়নের পথ ধরতে হলো ম্যাথু ওয়েডকে। কিন্তু নিজের দ্বিতীয় ওভারেই ৫টি ছক্কা খেতে হয় সাকিবকে। ড্যানিয়েল ক্রিস্টিয়ান সাকিবের এক ওভারে নেন ৩০ রান। পরের ওভারেই নাসুম এর বলে আউট হয়ে যান ম্যাকডরমেট।

মুস্তাফিজুর রহমান গতদিনের মতই ছিলেন অপ্রতিরোধ্য। প্রথম ওভারেই মেইডেন দিয়ে তুলে নিলেন ক্রিশ্চিয়ানের উইকেট। প্রথম দুই ওভারে ৩৫ রান দেওয়া সাকিব নিজের তৃতীয় ওভারে দিলেন ৪ রান এবং সেই সাথে ফিরতি শটে আসা বলে হাত ছুঁইয়ে সাকিব রান আউট করলেন হেনরিকসকে। ৬০ রানে অস্ট্রেলিয়া হারালো ৪ উইকেট।

প্রথম ওভারে মেইডেন উইকেট নেওয়া মুস্তাফিজ পরের ওভারে ২ রান দিয়ে তুলে নিলেন আরো একটি উইকেট। পরের ওভারেই মাহেদী তুলে নিলেন মার্শকে। ১১ রান করে ফিরে যান তিনি, সেই সাথে ৬৬ রানে ৬ উইকেট হারিয়ে ফেলে অস্ট্রেলিয়া। তবে এরপর আর উইকেট হারায়নি অস্ট্রেলিয়া। চার ওভারের স্পেল শেষ করতে সাকিব দিলেন ৫০ রান।

ওখানেই বোধহয় ম্যাচ শেষ টাইগারদের। এরপর বড় কোন অঘটন আর ঘটতে দেইনি অস্ট্রেলিয়া। শেষ পর্যন্ত ৬ বল বাকি থাকতে ম্যাচটি জিতে নেই অস্ট্রেলিয়া।