তৃতীয় দিন শেষে স্বস্তির নিঃশ্বাস বাংলাদেশ শিবিরে

0
1231

হারারেতে বাংলাদেশ ও জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে একমাত্র টেস্টের তৃতীয় দিন শেষে স্পিন ঘূর্ণি তে শক্ত অবস্থানে আছে বাংলাদেশ দল। ২য় ইনিংসে ২৩৭ রানে এগিয়ে আছে টাইগাররা, হাতে আছে ১০টি উইকেট, কোনো ওপেনার খাতা না খুলে ফিরে যায়নি সাজঘরে ২য় ইনিংসের প্রথম সেশনে বাংলাদেশী ব্যাটসম্যান ভালোভাবেই সেট হয়েছেন।

প্রথম ইনিংসে জিম্বাবুয়েকে ২৭৬ রানে গুটিয়ে দিয়ে ১৯২ রানের বড় লিড পায় বাংলাদেশ দল। বড় ইনিংসের পর দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করতে নেমে সাইফ হাসান ও সাদমান ইসলামের ব্যাটিং দৃঢ়তায় বিনা উইকেট হারিয়ে ৪৭ রান তুলে তৃতীয় দিনের খেলা শেষ করেছে টাইগাররা। সাইফ হাসান ২০* ও সাদমান ইসলাম ২২* রান নিয়ে চতুর্থ দিনের খেলা শুরু করবেন।

এর আগে দিনের শুরুতে ১ উইকেটে ১১৪ রান নিয়ে তৃতীয় দিনের খেলা শুরু করে স্বাগতিকরা, আগের দিনের দুই অপরাজিত ব্যাটার ব্রেন্ডন টেইলর ও তাকুদজওয়ানাশে কাইতানো দেখেশুনেই শুরু করেন, ব্যাটিংয়ে আগের দিনের ছন্দ তৃতীয় দিনের প্রথম দিক দিয়েও ধরে রাখেন ব্রেন্ডন টেইলর, সাকিব আল হাসানকে বিশাল এক ছক্কা মেরে ফিফটি পূরণ করেন জিম্বাবুইয়ান অধিনায়ক।

ফিফটির পর আরও সাবলীল টেইলর একের পর এক বাউন্ডারি হাঁকিয়ে যান। অন্যপ্রান্ত থেকে নিজের কাজটা ভালোভাবে করছিলেন কাইতানো ষষ্ঠ জিম্বাবুইয়ান ক্রিকেটার হিসেবে অভিষেকেই তুলে নিয়েছেন ফিফটি। তবে সেঞ্চুরির দিকে এগিয়ে যাওয়া ব্রেন্ডন টেইলরকে ৮১ রানে থামিয়ে ১১৫ রানের জুটি ভাঙেন মিরাজ। ২ উইকেটে ২০৯ রান নিয়ে মধ্যাহ্ন বিরতিতে যায় জিম্বাবুয়ে, তবে বিরতি থেকে ফিরে আর টিকতে পারেনি সাকিবের ঘূর্ণির সামনে।

তৃতীয় দিন শেষে সংক্ষিপ্ত স্কোর ;

বাংলাদেশ – ৪৬৮/১০; ১২৬ ওভার ( মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ ১৫০*, লিটন দাস ৯৫, তাসকিন আহমেদ ৭৫, মুমিনুল হক ৭০, ব্লেসিং মুজরাবানি ৪/৯৪, ডোনাল্ড ট্রিপানো ২/৫৮, ভিক্টর নিয়াচি ২/৯২ এবং ২য় ইনিংস – ৪৭/০; ১৭ ওভার ( সাইফ হাসান ২০*, সাদমান ইসলাম ২২*)।

জিম্বাবুয়ে – ২৭৬/১০; ১১.৫ ওভার ( কাইতানো ৮৭,ব্রেন্ডন টেইলর ৮১, শুম্ভা ৪১, চাকাভা ৩১*, ডিওন মেয়ার্স ২৭, মেহেদী হাসান মিরাজ ৫/৮২,সাকিব আল হাসান ৪/৮২)।