দ্বিতীয় সারির দলেও ইংলিশদের বাজিমাত

0
673

দ্বিতীয় সারির ইংলিশদের কাছে পাত্তাই পেলো না পাকিস্তান। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে খেলা ওয়ানডে দলের কোনো ক্রিকেটারকে ছাড়াই পাকিস্তানের বিপক্ষে মাঠে নেমেছিল ইংল্যান্ড ক্রিকেট দল‌। দ্বিতীয় সারির সেই দলের কাছেই পাত্তা পায়নি পাকিস্তান। ৫ অভিষিক্ত ইংলিশদের কাছে ৯ উইকেটের বিশাল ব্যবধানে হেরেছে পাকিস্তান, ম্যাচ সেরা হয়েছেন সাকিব মাহমুদ।

প্রথমে বোলিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন ইংল্যান্ডের নতুন ওয়ানডে অধিনায়ক বেন স্টোকস, ব্যাট করতে নেমে রানের খাতা খোলার আগেই উইকেটের খাতা খুলে বসেন পাকিস্তানের দুই ওপেনার। ওপেনার ইমাম-ওল হককে লেগ বিফোরের ফাঁদে ফেললেন সাকিব মাহমুদ। দুই বল পরেই পাকিস্তান অধিনায়ক বাবর আজমকে ফেরান ইংলিশ এই পেসার।

০ রানে ২উইকেট হারিয়ে ফেলার পর অনেকটা ব্যাকফুটে চলে গিয়েছিল পাকিস্তানি ব্যাটসম্যানরা।  কিন্তু ১৭ রানেই মোহাম্মদ রিজওয়ান আউট হয়ে সাজঘরে ফিরে যান। সদ্য অভিষেক হওয়া সৌদ শাকিলকে সাকিব মাহমুদ সাজঘরে ফেরালে ২৬ রানে ৪ উইকেটের পতন ঘটে পাকিস্তানের।

২৬ রানে ৪ উইকেট হারিয়ে রীতিমতো মতো বির্পযয়ে পড়ে যায় পাকিস্তান, কিন্তু পঞ্চম উইকেটে ৫৩ রান যোগ করে কিছুটা হাল ধরেন ফখর জামান ও শয়েব মাকসুদ। তবে ১৯ রান করে রান আউট হয়ে বিদায় নেন মাকসুদ।ভেঙে যায় ৫৩ রানের জুটি।

ফখর জামান একাই লড়তে থাকেন দলের হয়ে কিন্তু ব্যক্তিগত ফিফটি থেকে মাত্র তিন রান দূরে থাকতেই প্যারিকসনের বলে সাজঘরে ফিরেন তিনি। শেষ দিকে সাদাব খানের ৩০ রানে ১৪১ রানের সংগ্রহ পায় পাকিস্তান।

১৪২ রানের লক্ষ্য ব্যাট করতে নেমে ২২রানেই প্রথম উইকেট হারায় ইলিংশরা। অভিষিক্ত ফিলিপ সল্ট ৭ রানে আউট হন তবে পাকিস্তানের সাফল্য বলতে ওইটুকুই। আফ্রিদি হাসান আলি, হারিস রউফদের আর কোনো সুযোগই দেননি ইলিংশরা।

ওয়ানডে ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় ফিফটি তুলেন ডেভিড মালান, অপরাজিত থাকেন ৬৮ রানে, যা ওয়ানডেতে তার ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ রান। ফিফটি পেয়েছেন জ্যাক ক্রাওলিউ ৫০ বলে ৫৮ রানে অপরাজিত থাকেন তিনি। ২২ ওভার শেষ না হতেই লক্ষ্য পৌঁছে যায় ইলিংশরা, পাকিস্তানের হয়ে একমাত্র উইকেট পেয়েছেন শাহিন সাহ আফ্রিদি।

সংক্ষিপ্ত স্কোর ;

পাকিস্তান -১৪১/১০, ৩৫.২ ওভার। ফখর জামান ৪৭, মোহাম্মদ রেজওয়ান ১৩, শোয়েব মাকসুদ ১৯, সাদাব খান ৩০, সাকিব মাহমুদ ৪/৪২, ক্রেইগ ওভারটন ২/২৩, ম্যাট পারকিনসন ২/২৮)।

ইংল্যান্ড – ১৪২/১, ২১.৫ ওভার (ফিলিপ সল্ট ৭, ডেভিড মালান ৬৮*, জ্যাক ক্রাওলি ৫৮*, শাহিন শাহ আফ্রিদি ১/২২)।