আগুন বরফের নাটকীয় খেলায় জয়ী টেস্ট ক্রিকেট

0
7165

টেস্ট ক্রিকেটের সেরাদের সেরার সেই প্রতীক উঠলো যেনো সেরার হাতেই। আগুন বরফের এই এত এত পরিসংখ্যান ছাপিয়ে বিজয়ী যেনো টেস্ট ক্রিকেট।

কে ভেবেছিলো ব্ল্যাক ক্যাপসরা সাদা তে মাঠ কাঁপাবে পানির মতো শান্ত সেই উইলিয়ামসন এর চেয়ে বেশি ভালো অন্য কারো হাতে এই ট্রফি মানাবে বলে মনে হয় না।
মনে পড়ে কি দুবছর আগের সেই বিশ্বকাপের কথা সেই কষ্ট যা এখনো পড়াচ্ছেন উইলিয়ামসন দের হয়তো এখন আর হয়ত সেই স্মৃতি পোড়াবে না তাদের।

তবে করোনার কারণে সাউদাম্পটনে হওয়া এই ফাইনাল যদি লর্ডসে হতো তাহলে ২০১৯ বিশ্বকাপের সেই নিষ্টুর খেলার হিসাব করায় গন্ডায় মিলিয়ে নিতো ব্ল্যাক ক্যাপসরা। তবে হয় নি বলে যে খুব একটা আফসোস করছেন নিউজিল্যান্ড অধিনায়ক তা কিন্তু না। আর আফসোস কেনো ই বা করবে টেষ্টের প্রথম সেরাদের মুকুট যে তাদের হাতে।

ইংলিশ সামারের শেষ সময় সোনালি আলোয় বৃষ্টিতে বির্পযস্ত এক ফাইনালের শেষ দিনে কেন উইলিয়ামসন যখন সেই ট্রফিটা হাতে উঁচিয়ে ধরলেন তখন মনে হলো “ক্রিকেট ইজ আ্যন ইন্ডিয়ান গেম” কথাটার সত্যতা যাচাই করা দরকার। প্রায় দেড় শতাব্দী প্রাচীন টেস্ট ক্রিকেটের প্রথম অফিসিয়াল বিশ্ব চ্যাম্পিয়ান হিসেবে ইতিহাসে অক্ষয় হয়ে গেলো কেন উইলিয়ামসন এর নিউজিল্যান্ডের নাম।

উইলিয়ামসন এর চেয়ে ভালো কারো হাতে এই ট্রফি মানাতো না কথাটা যেমন সত্য এর মধ্যে আরো একটি সত্য আছে কোহলির হাতেও কিন্তু বেমানান লাগতোনা। ওয়ানডের সর্বকালের সেরা ব্যাটসম্যানদের কাতারে ইতিমধ্যে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করেছেন। যদিও আইপিএল এ তাকে নিয়ে টানাটানি তার দল কে নিয়ে বির্তক সমালোচনা সবকিছু ছাপিয়ে তিনি কিন্তু নিজের হৃদয় ধারণ করেন টেস্ট ক্রিকেট কে ই।

গত কয়েক বছরের সমীকরণ যদি চোখ রাখেন তাহলে দেখতে পারবেন তার পারফরমেন্স। টেস্ট ক্রিকেট কে সবার উপরেই মূল্যায়ন করেন কোহলি। এখন মনে হচ্ছে টেস্ট ক্রিকেট কে কোহলি যতই হৃদয়ে ধারন করেন না কেনো তার ব্যক্তিত্বের সাথে কিন্তু ওয়ানডে, টি-টোয়েন্টি বেশি মিলে যায়।

উইলিয়ামন এর ব্যাক্তিত্বের সাথে টেস্ট ক্রিকেট বেশি মানানসই তাই হয়তো শিরোপা কিন্তু যোগ্যর হাতেই। উইলিয়ামসম কে যদি জিজ্ঞাসা করা হতো আপনি কোনটার শিরোপার জন্য লড়বেন হয়তো তিনি তার স্বভাব অনুযায়ী ওয়ানডে টি টোয়েন্টি রেখে টেস্ট কেই বেছে নিতেন।

আরেকটু অবাক করার বিষয় বলে দেই জয়ের সময় উইকেট এ যেই দুজন ব্যাটসম্যান ছিলেন তারাই কিন্তু নিউজিল্যান্ডের পক্ষে টেস্টে সবচেয়ে বেশি রান করেছেন হ্যাঁ ঠিক ধরেছেন বলছি ক্যাপ্টেন কেন উইলিয়ামসন এবং রস টেইলর এর কথা‌বিশ্ব ক্রিকেটের মাঝারি কাতারে পরে থাকা দল টি আজ টেস্টে চ্যাম্পিয়ন এই চ্যাম্পিয়ন হবার পিছনে অনেক বড় অবদান রয়েছে রস টেইলর এবং কেন উইলিয়ামসন এর।

নিউজিল্যান্ড জিতেছে, জিতেছেন কেন উইলিয়ামসন কিন্তু আসল জয়ীর নাম টাই যে বলা হয় নি, সেই জয়ীর নাম জানতে চান?

ওর্য়াল্ড টেস্ট চ্যাম্পিয়ান শিপের প্রথম ফাইনালে নিঃসন্দেহে জয়ী তো ক্রিকেট এর এই অপূর্ব ফরম্যাট টি। যার সঙ্গে কোনো খেলার তুলনাই চলে না। ধৈর্য্য ভালোবাসা একের পর এক নাটক এর চড়াই উৎরাই পেরিয়ে বের হয় এর রেজাল্ট ভক্ত অধীর আগ্রহে বসে থাকে প্রথম থেকে শেষ দিন পর্যন্ত শুধু মাত্র ফলাফল দেখবে বলে।

নাটকীয় এবং অভাবনীয় সব কান্ডের জন্যই বোধ হয় টেস্টের এত সুনাম, এবং তা আর একটু রোমাঞ্চকর বানাতেই মনে হয় বৃষ্টির এমন তৎপরতা‌। দুদিন একটা বল ও গড়ায় নি মাঠে তবুও হিসাব মতো তো পাঁচদিন চলে গেছে টেস্টের। পুরো খেলা হলে ৪৫০ ওভার হতো বৃষ্টির কারণে অর্ধেকের ও কম হয়েছে। তারপরও অবিশ্বাস্য ভাবে শেষ দিনটা শুরু হয়েছে তিনটি সম্ভাবনা দিয়ে যা স্বাভাবিক ভাবেই টেস্ট ক্রিকেট এ হয়ে থাকে।

চতুর্থ দিন ও বৃষ্টি কেউ হয়ত ভাবেনি এই টেস্ট জয় পরাজয় এর দেখা পাবে। টেস্ট গ্রেট সুনীল গাভাস্কার ধরেই নিয়েছিলেন এই টেস্ট ড্র হবে। তিনি বলেছিলেন বিজয়ী নির্ধারনের জন্য টেনিস, ফুটবলের মতো ট্রাইব্রেকারের প্রয়োজন হবে। টেস্টের সৌন্দর্য যে এইখানেই বরাবরই তকমা লাগিয়ে ফলাফল বের করে আনে।

নিউজিল্যান্ড ভারতের আগুন বরফের এই লড়াই প্রথম ওর্য়াল্ড টেস্ট চ্যাম্পিয়াশিপের এই লড়াই যতটা না মনে পড়বে ঠিক ততটাই কিংবা তার চেয়ে বেশি মনে পড়বে আসল জয়ীর নাম।