ফাওয়াদ আলমে মুগ্ধ শোয়েব আখতার

0
902

প্রায় ১১ বছর পর আবারও পাকিস্তানের সাদা জার্সিতে ফিরে ব্যাট হাতে মুগ্ধতা ছড়িয়েই চলেছেন ফাওয়াদ আলম। চলমান ওয়েস্ট ইন্ডিজে সফরের প্রথম টেস্টে অর্ধশতক হাঁকানোর পর দ্বিতীয় টেস্টেও আরও একটি দূর্দান্ত ইনিংস খেলে দলকে বিপদমুক্ত করেছেন ৩৫ বছর বয়সী বাঁহাতি ব্যাটার।

সারা বিশ্বের ক্রিকেটপ্রেমিদের ন্যায় ফাওয়াদ আলমের এমন অনবদ্য পারফরম্যান্স মন ছুঁয়ে গেছে পাকিস্তানের কিংবদন্তি পেসার শোয়েব আখতারকেও। ফাওয়াদকে ‘জিনিয়াস’ আখ্যা দিয়ে প্রশংসার জোয়ারে ভাসিয়েছেন রাওয়ালপিন্ডি এক্সপ্রেস।

শোয়েব আখতার বলেছেন, “ফাওয়াদ আলম একজন দূর্দান্ত মেধাবী ব্যক্তি। তিনি টিভিতে অভিনয় করেছেন, ক্রিকেট খেলেছেন এবং নাটকেও অভিনয় করেছেন। তবে সবসময়ই তিনি তার ভালো পারফর্মেন্স বজায় রেখেছেন। ১১ বছর দলের বাইরে থাকা সত্ত্বেও, তিনি নিজের সবটা উজার করে পাকিস্তানের হয়ে খেলেন। তাকে টুপি খোলা সালাম।”

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে সিরিজ নির্ধারনী জ্যামাইকা টেস্টের প্রথম দিনে বাবর আজমকে সাথে নিয়ে পাকিস্তানকে চরম বিপর্যয় থেকে টেনে তুলেছেন ফাওয়াদ আলম। টসে হেরে ব্যাটিং নেমে মাত্র ২ রানেই ৩ উইকেট হারানো পাকিস্তান, চতুর্থ উইকেটে জুটিতে ফাওয়াদ-বাবরের অনবদ্য ১৫৮ রানের পার্টনারশিপে ঘুরে দাঁড়ায়।

অবশ্য দলীয় ১৬০ রানে ক্র‍্যাম্পের ইঞ্জুরিতে মাঠ ছাড়তে বাধ্য হন ফাওয়াদ আলম। রিটায়ার্ড হার্ট হয়ে প্যাভিলিয়নে ফেরার আগে ১৪৯ বল মোকাবিলায় হার না মানা ৭৬ রান করে তিনি, যেখানে ১১টি চার মেরেছেন বাঁহাতি এই ব্যাটার।

পরবর্তীতে ৪ উইকেটে ২১২ রানে প্রথম দিন শেষ করেছিলো পাকিস্তান। তবে বৃষ্টির জন্য দ্বিতীয় দিনের পুরো খেলাই ভেস্তে গেছে। তৃতীয় দিনে ফিট হয়ে উঠতে পারলে আবারও ক্রিজে দেখা যেতে পারে ফাওয়াদ আলমকে।

সংক্ষিপ্ত স্কোরঃ

পাকিস্তানঃ ২১২/৪ (৭৪ ওভার); ফাওয়াদ ৭৬, বাবর ৭৫, ফাহিম ২৩*, রিজওয়ান ২২*; রোচ ৩/৪৯, সিলস ১/২৫