বাংলাদেশকে স্টেডিয়াম উপহার দিতে চায় স্পেন অপ

0
636

ইউরোপীয়ান ফুটবলে অন্যতম পরাশক্তির দেশ স্পেন। জিতেছে ২০১০ ফিফা বিশ্বকাপ সহ দুইটি ইউরো চ্যাম্পিয়নশিপ। এবার সেই স্পেন সরকার বাংলাদেশের ফুটবল উন্নয়নে হাত বাড়িয়ে দিতে চায়। বানিয়ে দিতে চায় স্টেডিয়াম।

আজ সোমবার ( ২০ সেপ্টেম্বর) বিকেলে যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী মোঃ জাহিদ আহসান রাসেলের সাথে সচিবালয়ে তার নিজ দপ্তরে স্পেনের রাষ্ট্রদূত ফ্রান্সিকো ডি অসীস বেনিটোজ সালাজ সৌজন্যে সাক্ষাৎ করেছেন। সাক্ষাৎ কালে যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব মোঃ আখতার হোসেন ও বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের সভাপতি কাজী মোঃ সালাউদ্দিন উপস্থিত ছিলেন।
এসময়ে স্পেনের রাষ্ট্রদূত সাম্প্রতিক সময়ে বিভিন্ন ডিসিপ্লিনে বাংলাদেশের ক্রীড়া ক্ষেত্রের উন্নয়নের ভূয়সী প্রশংসা করেন। বাংলাদেশের ফুটবলের উন্নয়নে স্পেন সহযোগিতা করতে চায় এমনটা জানিয়েছেন। বাংলাদেশে স্টেডিয়াম নির্মাণে স্পেন সরকারের সহযোগিতা এবং বিভিন্ন উপজেলায় নির্মাণাধীন শেখ রাসেল মিনি স্টেডিয়ামে টার্ফ স্হাপনে আগ্রহ প্রকাশ করেন।

স্পেনের রাষ্ট্রদূত বলেন, “বিশ্ব ফুটবলে স্পেন একটি শক্তিশালী দল। তাই বাংলাদেশের ফুটবলকে বিশ্ব ফুটবলে একটি শক্তিশালী অবস্থানে নিয়ে যেতে বাংলাদেশের অবকাঠামোগত উন্নয়নসহ প্রশিক্ষণ খাতে স্পেন সহযোগিতা করতে চায়।”
বাংলাদেশের ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী স্পেনের রাষ্ট্রদূতের প্রস্তাবনাকে স্বাগত জানিয়ে বলেন, “বাংলাদেশ সরকার ফুটবলসহ দেশে সকল খেলার উন্নয়নে নিরলসভাবে কাজ করছে। বিশ্ব ক্রিকেটে বাংলাদেশ এখন এক অপরাজিত শক্তি। সাম্প্রতিক সময়ে আমরা ধারাবাহিক ভাবে অস্ট্রেলিয়া, নিউজিল্যান্ড ও জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সিরিজ জয় করেছি। ফুটবল, আর্চারী, শুটিং ও অন্যান্য খেলাতেও সাফল্য আসছে। ফুটবলসহ দেশের ক্রীড়ার উন্নয়নে বন্ধু রাষ্ট্র স্পেনের সহযোগিতার প্রস্তাবকে সাধুবাদ জানাই এবং বিশ্ব ক্রীড়াঙ্গনে এক নতুন অধ্যায়নের সূচনা করতে চাই।”

ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী স্পেন সরকারকে বাংলাদেশের বিকেএসপির মেধাবী ছাত্রদের ও অন্যান্য তরুণ উদীয়মান খেলোয়াড়দের স্পেনে স্কলারশিপ প্রদানের আহ্বান জানান। দেশের মেধাবী ছাত্র ও খেলোয়াড়দের স্পেনে গিয়ে উন্নত প্রশিক্ষন গ্রহণের সুযোগ প্রদানের পাশাপাশি ফুটবলসহ অন্যান্য খেলায় স্পেনের কোচ বাংলাদেশের খেলোয়াড়দের উন্নত প্রশিক্ষন প্রদানের সুযোগ করে দিতে স্পেন সরকারকে অনুরোধ জানান।
উক্ত সভায় যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের উর্দ্ধতন কর্মকর্তা বৃন্দ জাতীয় ক্রীড়া পরিষদের সচিব ও বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক উপস্থিত ছিলেন।