বাবর-ফাওয়াদের ব্যাটে ঘুরে দাড়িয়েছে পাকিস্তান

0
277

জ্যামাইকায় দুই ম্যাচ সিরিজের দ্বিতীয় এবং শেষ টেস্টের প্রথম দিনে বাজে শুরুর পর বাবর আজম এবং ফাওয়াদ আলমের ব্যাটিং দৃঢ়তায় ঘুরে দাঁড়িয়েছে পাকিস্তান। আর এ দুজনের ব্যাটে ভর করেই সিরিজ বাঁচানোর লড়াইয়ে দিন শেষে তাদের সংগ্রহ ৪ উইকেটে ২১২ রান। ২২* রানে মোহাম্মদ রিজওয়ান এবং ২৩* রানে ফাহিম আশরাফ অপরাজিত আছেন।

শুক্রবার সাবিনা পার্কে টসে হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে পাকিস্তানের শুরুটা হয়েছিলো দুঃস্বপ্নের মতো। স্কোরবোর্ডে মাত্র ২ রান যোগ করতেই সাজঘরে ফিরে যান সফরকারীদের টপঅর্ডারের ৩ ব্যাটার। ম্যাচের তৃতীয় বলেই দলীয় ২ রানে স্লিপে জার্মেইন ব্ল্যাকউডের হাতে ধরা পড়ে কেমার রোচের শিকার হয়ে সাজঘরে ফিরেন ১ রান করা আবিদ আলী।

এরপর তৃতীয় ওভারে রোচের দ্বিতীয় শিকার হয়ে রানের খাতা খোলার আগেই ফিরে যান আজহার আলী। আর পরের ওভারে ১ রান করে আউট হন আরেক ওপেনার ইমরান বাটও। তাকে ফেরান গত টেস্টের ম্যাচ সেরা তরুণ পেসার জায়ডেন সিলস।

অবশ্য চতুর্থ উইকেট জুটিতে অধিনায়ক বাবর আজম এবং ফাওয়াদ আলমের অনবদ্য পার্টনারশিপে প্রাথমিক বিপর্যয় সামাল দেয় পাকিস্তান। গত টেস্টের মত এ টেস্টেও দুজনেই তুলে নেন অর্ধশতক। কিন্তু দলীয় ১৬০ রানে ক্র‍্যাম্পের ইঞ্জুরিতে মাঠ ছাড়তে বাধ্য হন ফাওয়াদ আলম।
১১ চারে ১৪৯ বল মোকাবিলায় ৭৬ রান করে ফাওয়াদ অবসর নিয়ে সাজঘরে ফেরার কিছুক্ষণ পর আউট হন বাবর আজমও। কেমার রোচের তৃতীয় শিকার হয়ে আউট হওয়ার আগে ১৭৪ বল মোকাবিলায় তার ব্যাট থেকে আসে ৭৫ রান, যেখানে পাকিস্তান অধিনায়ক মেরেছেন ১৩টি চার
এরপর মোহাম্মদ রিজওয়ান এবং ফাহিম আশরাফের ব্যাটে দিনের বাকিটা সময় নির্বিঘ্নেই কাটিয়ে দেয় পাকিস্তান। তাই বাজে শুরুর পরও দিনশেষে স্বস্তি নিয়েই মাঠে ছেড়েছে সফরকারীরা।

উল্লেখ্য, দুই ম্যাচ সিরিজের প্রথম টেস্টে ১ উইকেটের দূর্দান্ত জয়ে সিরিজে ১-০ এগিয়ে আছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ।
সংক্ষিপ্ত স্কোরঃ (টস – ওয়েস্ট ইন্ডিজ)
পাকিস্তানঃ ২১২/৪ (৭৪ ওভার); ফাওয়াদ ৭৬, বাবর ৭৫, ফাহিম ২৩*, রিজওয়ান ২২*; রোচ ৩/৪৯, সিলস ১/২৫।