ব্রাথওয়েট না রিংকু সিং!

0
423

২০১৬ টি-টুয়েন্টি বিশ্বকাপ ফাইনাল, কলকাতার ইডেন গার্ডেনে ১৫৬ রানের টার্গেটে ব্যাটিং করছে ওয়েষ্ট ইন্ডিজ। শেষ ওভারে জয়ের জন্য প্রয়োজন ছিল ১৯ রান। মাত্র ৭ টি আন্তর্জাতিক টি-টুয়েন্টি ম্যাচ খেলা ব্রাথওয়েট ৮ নম্বরে ব্যাট করতে নামেন। নন স্ট্রাইকিং প্রান্তে মর্লেন স্যামুয়েলস ৮৫ রানে অপরাজিত ছিলেন।

ইংলিশরা ভেবেছিল যাক এটা বেশ ভালো হয়েছে নতুন টেল এন্ডার স্ট্রাইকে রয়েছে অপর দিকে স্যমুয়েলস তখন পুরোপুরি সেট ব্যাটার। আর পূর্বের ম্যাচ গুলিতে স্টোকস ডেথ ওভারে বল হাতে বেশ কার্যকর ছিল।

ব্রাথওয়েট শেষ ওভারে মোকাবেলা করবেন আর এক ইংলিশ অলরাউন্ডার বেন স্টোকস কে। প্রথম চার বলে পর পর ৪টি ছক্কা হাঁকিয়ে ইংলিশদের স্বপ্ন ভঙ্গ করে দলকে ফাইনাল জিতান। অপরাজিত থাকেন ১০ বলে ৩৪* রান করে। বল হাতেও ঐ ম্যাচে তিনি ছিলেন অসাধারণ। ৪ ওভার বল করে ২৩ রানের বিনিময়ে নেন ৩টি উইকেট যার মধ্যে ছিল যস বাটলার ও যো রূটের মত উইকেট।

গতকাল কেকেআর বনাম গুজরাট টাইটানের খেলায় আইফপিএল ইতিহাসের শেষ ওভারে রেকর্ড ইনিংস খেলেন কেকেআর ব্যাটার রিংকু সিং। গুজরাট টাইটানের দেওয়া ২০৪ রানের টার্গেটে ব্যাটিং করতে নামা কেকেআর ১৭ তম ওভারে এসে রশিদ খান হ্যাটট্রিক উইকেট নেন। এর পরে কেকেআর দারুন চাপে পরে গিয়ে ছিল। এই অবস্থা থেকে এই ম্যাচ গুজরাটের পক্ষে চলে গিয়েছে বলে মনে হয়েছিল।

রিংকু সিং শেষ ওভারের আগে একটি চার এবং একটি ছক্কা মেরে ম্যাচ সমীকরন ৬ বলে ২৯-এ নামিয়ে আনেন। রিংকু সিং যশ দয়ালের শেষ ওভারে টানা পাঁচটি ছক্কা মেরে কলকাতা নাইট রাইডার্সকে গুজরাট টাইটানসের বিরুদ্ধে আহমেদাবাদের নরেন্দ্র মোদি স্টেডিয়ামে স্মরণীয় তিন উইকেটের জয় এনে দেয়।

কেকেআর-এর শেষ ওভারে ২৯ রানের প্রয়োজন ছিল, রিংকু মাত্র ২১ বলে ৪৮ রানে অপরাজিত থেকে শেষ ওভারে পাঁচটি ছক্কা মেরে ম্যাচ জিতিয়ে মাঠ ছাড়েন। গতকাল এই অকল্পনীয় ম্যাচ জয়ের পর সোশ্যাল মিডিয়ায় ট্রেন্ডিং ছিল রিংকু।

উত্তরপ্রদেশের আলিগড়ে জন্মগ্রহণকারী রিংকুকে আইপিএল ২০২৩-এর আগে কেকেআর ৫৫ লক্ষ টাকায় তাকে ধরে রেখেছিল৷ ২০১৮ সালে কেকেআর তাকে ৮০ লক্ষ টাকায় প্রথম কিনেছিল৷ যদিও প্রথম মৌসুমে তেমন কোন দুর্দান্ত পারফরম্যান্স দেখাতে পারেনি, তবে তার সম্ভাবনা বিবেচনা করা হয়েছিল এবং তাকে আইপিএল ২০১৯ এর জন্যও ধরে রাখা হয়েছিল।

এই অসাধারণ কীর্তির পর তার এই পারর্ফমেন্স তুলনা করা হচ্ছে ২০১৬ সালের ব্রাথওয়েটের ইনিংসের সাথে। যদিও দুইটি সম্পূর্ণ ভিন্ন প্রক্ষআপট ভিন্ন পরিস্থিতি। দুইটি ইনিংসের কোনটা ছোট করে দেখার অবকাশ নেই। আপনার কাছে কোন ইনিংসটি সেরা!