ব্রেনডন টেইলরের ৮ রানের আক্ষেপ

0
588

হারারেতে আজকে (শনিবার) একমাত্র টেস্টে চতুর্থ দিনে বাংলাদেশের ২য় ইনিংস শেষে ৪৭৭ করে ইনিংস ঘোষণা দেয়। সেই ৪৭৭ রানের জবাবে ২য় ইনিংস খেলতে নামে জিম্বাবুয়ে।

জিম্বাবুয়ের ক্যাপ্টেন ব্রেনডন টেইলর রীতিমতো ঝড় তুলেন হারারের স্পোর্টস ক্লাব মাঠে। তবে তিনি শুধু রানের ঝড় তুলেননি তিনি একের পর এক রেকর্ড ও গড়েছেন বাংলাদেশ বনাম জিম্বাবুয়ের এই সিরিজে।

চলমান টেস্ট খেলতে নেমে সাবেক সর্তীথ হ্যামিল্টন মাসাকাদজাকে টপকে বাংলাদেশের বিপক্ষে সর্বাধিক আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলার রেকর্ড গড়েছিলেন টেইলর। এরপর প্রথম ইনিংসে ৮১ রানের দারুণ এক ইনিংস খেলে এই ফরম্যাটে বাংলাদেশের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ রান সংগ্রহাহক হওয়ার কীর্তি গড়েন তিনি। ।

বাংলাদেশের ছুড়ে দেওয়া পাহাড়সম টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে ২য় ইনিংসে আরও একটি দুর্দান্ত ইনিংস উপহার দিয়েছেন ব্রেন্ডন টেইলর।ছুয়েছেন টেস্ট ফরমেটে জিম্বাবুয়ের পক্ষে দ্রুততম ফিফটির রেকর্ড। হারারে স্পোর্টস ক্লাব মাঠে আজ মাত্র ৩৩ বলে অর্ধশতক পূরণ করেছেন জিম্বাবুয়ে অধিনায়ক। এর আগে ২০০২ সালে পাকিস্তানের বিপক্ষে ৩৩ বলে ফিফটি করেছিলেন আ্যন্ডি ব্লিগনট।

টেস্টে সবচেয়ে কম বলে জিম্বাবুয়ে খেলোয়ার হিসেবে ফিফটি করেছিলেন যারা –

৩৩ বল- ব্রেনডন টেইলর, বনাম বাংলাদেশ ২০২১।

৩৩ বল- আ্যন্ডি ব্লিগনট বনাম পাকিস্তান ২০০২।

৩৪ বল–ব্লেসিং মাহওয়্যার বনাম নিউজিল্যান্ড ২০০৫।

৩৯ বলে- আ্যন্ডি ব্লিগনট বনাম দক্ষিণ আফ্রিকা ২০০৫।

৪০ বল- আলিস্টার ক্যাম্পবেল বনাম পাকিস্তান ১৯৯৩।

তবে টেইলরের এত রেকর্ড যেনো বার বারই বৃথা যায় প্রথম ইনিংসে ৮১ রান করে আউট হওয়ার পর ২য় ইনিংসে সেই আউটের শোক  কমাতে চান। তবে নার্ভাস নাইনটিজের শিকার হয়ে ৯২ রানে আউট হয়ে যান মেহেদী মিরাজের বলে। মেহেদী মিরাজ প্রথম ইনিংসেও টেইলর কে থামিয়ে দেন ২য় ইনিংসেও টেইলরকে ৮ রানের আক্ষেপে সাজঘরে পাঠান বাংলাদেশী এই স্পিনার। মাত্র আট রানের জন্য তিন অংকের সেই ম্যাজিক ফিগারে পৌছাতে পারেনি দ্যা আনলাকি ম্যান ব্রেন্ডন টেইলর।

শেষ পর্যন্ত ৭৩ বলে ৯২ রান করে সাজঘরে ফেরত যান টেইলর উল্লেখ্য যে টেস্ট ক্রিকেটে ৯২ রানের ইনিংসের ক্ষেত্রে এটি ২য় দ্রুততম। এবং ৯২ রানের এই ইনিংসের দ্রুততম রেকর্ডের তালিকায় প্রথমে রয়েছেন শ্রীলংঙ্কান ব্যাটসম্যান তিলকারত্ন দিলশান।