সেরাদের সেরা হওয়া শুধু সময়ের অপেক্ষা

0
77

সাকিব আল হাসান যার ব্যক্তিগত অর্জনের কোন শেষ নেই। নিজের নামের সাথে জুড়ে দিয়েছেন অসংখ্য রেকর্ড। দেশের হয়ে এবং আন্তর্জাতিক পর্যায়ে অসংখ্য সব রেকর্ড নিজের করে নিয়েছেন।

কিন্তু যে কোন ক্রিকেটার হোক না কেন সবার নজর থাকে বিশ্বকাপের দিকে একটু ভালো পারফরমেন্স করার। এই বৈশ্বিক টুর্নামেন্ট নিয়ে খেলোয়াড়, দল ও সমর্থকদের উত্তেজনার কোন কমতি থাকে না। বিশ্বকাপের অসাধারণ একটা পারর্ফমেন্স খেলোয়াড় জীবন আজীবন স্বরনীয় করে রাখে।

সাকিব আল হাসানের ২০১৯ বিশ্বকাপটা গিয়েছে একদম স্বপ্নের মত। ব্যাট বল হাতে উভয় বিভাগে অসাধারণ পারর্ফম করেন। দলের হয়ে নিজে একাই বুক চিতিয়ে লড়াই করে গেছেন। বিশ্বকাপ পূর্ব তার প্রস্তুতি পরিশ্রম দারুন ফল দিয়েছিল আর পারর্ফমেন্সের উপর। অনেক খানি ওজন ঝড়িয়ে ফেলেছিলেন, কোচ সালাউদ্দিন এর কাছ থেকে ব্যক্তিগত তামিল নিয়েছেন। এর ফলাফল ও চোখের সামনে আমরা দেখেছি।

২০১৯ বিশ্বকাপে সাকিব আল হাসান ব্যাট হাতে ৮৭.৫৭ গড়ে করেছেন ৬০৬ রান এবং বল হাতে ৩৬.২৭ গড়ে নিয়েছেন ১১ উইকেট। যে কোন খেলোয়াড় এর জন্য এটা স্বপ্নের পারর্ফমেন্স। ২০১৯ এর আজকের এই দিনে বাংলাদেশের বিশ্বকাপ যাত্রা শেষ হয়।

অলরাউন্ডারদের বিশ্বকাপ যাদের সর্বনিম্ন ২৫০ রান ও ১০ টি উইকেট আছে তাদের মধ্যে সবার উপরে আছেন ক্রিস গেইল। গেইল ৩৫ ম্যাচছ ১১৮৬ রান ১৬ উইকেট নিয়ে এই তালিকায় সবার উপরে রয়েছেন। এই তালিকায় সাকিব ২৯ ম্যাচে ১১৪৬ রান এবং ৩৪ উইকেট নিয়ে চতুর্থ অবস্থানে রয়েছেন এবং পরের বিশ্বকাপে এই তালিকায় সবার সেরা হবার অপেক্ষায়।

সাকিবের চেয়ে বেশি উইকেট আছে পাকিস্তানী কিংবদন্তি বোলার ওয়াসিম আকরাম তিনি ৩৮ ম্যাচে ৫৫ উইকেট ও নিউজিল্যান্ডের জ্যাকব ওরাম তিনি ২৩ ম্যাচে নিয়েছেন ৩৬ উইকেট। আর এক পাকিস্তান কিংবদন্তি ইমরান খানের সাথে সমান সংখ্যক উইকেট নিয়ে একই অবস্থানে রায়েছে সাকিব আল হাসান।

ব্যাটিং এ সবার উপরে রয়েছে ক্রিস গেইল ১১৮৬ রান, দ্বিতীয় ও তৃতীয় অবস্থানে রয়েছেন যথাক্রমে ৩৮ ম্যাচে সানাথ জয়সুরিয়া ১১৬৫ রান ও জ্যাক ক্যালিস ৩৬ ম্যাচে ১১৪৮ রান।

সেরাদের সেরা হওয়া এখন মাত্র সময়ের ব্যাপার। সামনের ওডিআই বিশ্বকাপে সবাইকে পিছনে ফেলে অলরাউন্ডারদের তালিকায় সবার উপরে উঠে আসবেন তিনি আর অতটা সময় আমাদের শুধু অপেক্ষার পালা।