১ বলে ২৮৬ রান

0
1304

উপকথার গল্পগুলো তো নিশ্চয় জানা আছে আপনাদের। অথবা নর্স পুরাণ। সাথে আছে আরব্য রজনীর মনভুলানো সব গল্প। উপভোগ্য কিন্তু ঠিক বিশ্বাসযোগ্য নয়। ক্রিকেটেও এমন কিছু লোকগাঁথা বা গল্প রয়েছে যা অনেক সময় আমাদের যুক্তিশীল মস্তিষ্ককে বিভ্রান্ত করে দিলেও আমাদের মনকে বিনোদনের খোরাক দেয়। আজ আপনাদেরকে ক্রিকেটের তেমনি এক পৌরাণিক কাহিনী শুনাবো।

১৮৯৪ সালের ১৫ জানুয়ারি Pall Mall Gazette নামের এক লন্ডনভিত্তিক দৈনিক পত্রিকা তাদের খেলার পাতায় এক অদ্ভুত গল্প ছাপে। গল্পটি ছিলো এরকম –

“অস্ট্রেলিয়ার Bunbury তে ভিক্টোরিয়া আর ওয়েস্টার্ন অস্ট্রেলিয়ার মাঝে একটি প্রথম শ্রেণির ম্যাচ চলছিলো। প্রথমে ব্যাট করতে নামে ভিক্টোরিয়া। ম্যাচের প্রথম বলটিই ব্যাটসম্যান ছক্কা মারতে যায় আর সেটি গিয়ে আটকায় মাঠের বাউন্ডারির ভিতরে থাকা একটা লম্বা Jarrah (ইউক্যালিপটাস) গাছের উঁচুতে। কথিত আছে, তখন বোলিং টিম ‘Lost Ball’ এর আবেদন জানায় আম্পায়ারের কাছে। কিন্তু আম্পায়াররা দেখতে পাচ্ছিলেন বলটি ঠিক কোথায় গিয়ে আটকে আছে, তাই তারা সেই আবেদন খারিজ করে দেন!

এদিকে ততক্ষণে ভিক্টোরিয়ার দুই ব্যাটসম্যান দৌড়ে রান নিচ্ছেন একের পর এক! উপায় খুঁজে না পেয়ে কুড়াল আনতে পাঠানো হলো গাছ কাটার জন্য। কিন্তু দূর্ভাগ্যক্রমে কুড়াল সংগ্রহ করা গেলো না।

এরপর কেউ একজন রাইফেল আনলো গাছের ডালে গুলি করে বলটিকে মাটিতে নামানোর জন্য৷ অনেকগুলো গুলি ছোঁড়া হলো৷ অবশেষে বলটিকে লক্ষ্যভেদ করে নিচে নামানো হলো। কিন্তু মজার ব্যাপার হচ্ছে বলটি যখন নিচে পড়ছিলো কেউ সেটিকে ক্যাচ করার চেষ্টা করেনি, ধরলে সেটা আউট হিসেবেই বিবেচিত হতো।

ততক্ষণে দুই ব্যাটসম্যান দৌড়ে ২৮৬ রান নিয়ে ফেলেছে। ১ বলে সর্বোচ্চ রানের এই বিশ্বরেকর্ড করার পরই তারা ইনিংস ডিক্লেয়ার করে এবং ম্যাচটি জিতেও যায়!”

এই জনপ্রিয় গল্পটির যদিও কোন উপযুক্ত প্রামাণ্য দলিল নেই। অস্ট্রেলিয়ার সেই অংশের এক পত্রিকা একে মজাদার ফ্যান্টাসি বলেছে। তাদের মতে ২৮৬ রান নেয়ার জন্য দুই ব্যাটসম্যানকে প্রায় ৬ কি.মি. দৌড়াতে হবে যা বিশ্বাসযোগ্য নয়। তবে যুগে যুগে এই ঘটনাকে সত্য প্রমাণ করার চেষ্টাও অনেকে করেছে। বাস্তব ঘটনা হোক বা কোন ফ্যান্টাসি, ক্রিকেটের এক অসাধারণ পৌরাণিক কাহিনী হয়ে যুগ যুগ ধরে বেঁচে থাকবে এটি ইতিহাসের পাতায়।

লেখকঃ সাজ্জাদুল কাদের