৪ বছরের জন্য নিষিদ্ধ আরব আমিরাতের সাব্বের

0
850

দুর্নীতির দায়ে সংযুক্ত আরব আমিরাতের আরও এক ক্রিকেটার নিষিদ্ধ হলেন। এবার উইকেটকিপার ব্যাটার গুলাম সাব্বেরকে সব ধরনের ক্রিকেট থেকে ৪ বছরের জন্য নিষিদ্ধ করেছে আইসিসি। সোমবার এক বিবৃতিতে বিষয়টি নিশ্চিত করেছে ক্রিকেটের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থাটি।

আইসিসির দুর্নীতি দমন আইনের ছয়টি ধারা ভঙ্গের অভিযোগ প্রমাণিত হয়েছে গুলাম সাব্বের বিরুদ্ধে। ২০১৯ সালে জিম্বাবুয়ে ও নেপাল সিরিজে অপরাধগুলো সংঘটিত করেছিলেন আরব আমিরারের সাবেক এই কিপার-ব্যাটার।

যেখানে দুইবার করে আইসিসির ধারা ২.৪.৪ ও ২.৪.৫ এবং একবার করে ২.৪.৬ ও ২.৪.৭ ধারা ভেঙেছেন সাব্বের। ইতোমধ্যেই আইসিসির দেওয়া শাস্তি মেনে নিয়েছেন ৩৫ বছর বয়সী এই কিপার-ব্যাটার।

ফলে তার শাস্তির মেয়াদ আজ (৬ সেপ্টেম্বর ২০২১) থেকেই শুরু হয়েছে। যা ২০২৫ সালের ২০ আগষ্ট পর্যন্ত বহাল থাকবে। যে সময়টাতে কোনো ধরনের ক্রিকেটের সাথে যুক্ত থাকতে পারবেন না গুলাম সাব্বের৷

সেই বিবৃতিতে আইসিসির জেনারেল ম্যানেজার অ্যালেক্স মার্শাল বলেন, “সাব্বের আরব আমিরাতের হয়ে ৪০টি ম্যাচ খেলেছে। একজন আন্তর্জাতিক ক্রিকেটার হিসেবে এসব বিষয়ে তার সুস্পষ্ট ধারণা থাকার কথা ছিল। কিন্তু সে দুর্নীতি বিরোধী কয়েকটি সেশনেও অংশ নিয়েছে।”

তিনি আরও যোগ করেন, এটা খুবই দুঃখজনক যে, সে আমাদের থেকে এসব এড়িয়ে গেছে। যদিও পরবর্তীতে তদন্তের সময় সে আমাদের সহায়তা করেছে। কিন্তু আমরা তাকে শাস্তি দিয়েছি। কারণ আমরা বার্তা দিতে চাই, ভুল করলে শাস্তি পেতেই হবে এবং এটা সবার ক্ষেত্রেই প্রযোজ্য।”

স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে ওয়ানডেতে ২০১৭ সালে সংযুক্ত আরব আমিরাতের হয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অভিষেকের পর ২৩টি ওয়ানডে এবং ১৭টি টি-টোয়েন্টি খেলেছেন সাব্বের। ২০১৯ সালের এপ্রিলে সর্বশেষ জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজে দেশের হয়ে খেলেছিলেন বাঁহাতি এই কিপার-ব্যাটার।